ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৪ আশ্বিন ১৪৩০

Sharenews24

মুনাফা কমায় ডিভিডেন্ড কমতে পারে জ্বালানির ১০ কোম্পানির

২০২৩ সেপ্টেম্বর ০৯ ১৬:২৩:১৭
মুনাফা কমায় ডিভিডেন্ড কমতে পারে জ্বালানির ১০ কোম্পানির

নিজস্ব প্রতিবেদক: শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ১০টি কোম্পানির (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) নয় মাসে মুনাফা কমেছে। আর লোকসানে রয়েছে ৫টি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এই ১০টি কোম্পানির মধ্যে সর্বোচ্চ ৯৬.১৩ শতাংশ থেকে সর্বনিন্ম ২.৭৩ শতাংশ করে মুনাফা কমেছে। মুনাফা কমার কারণে কোম্পানিগুলোর ডিভিডেন্ড কমতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ মুনাফা বাড়লে ডিভিডেন্ড বাড়ে, আর মুনাফা কমলে ডিভিডেন্ড কমে-শেয়ারবাজারে এমন ধারণা রয়েছে।

তবে এই ধারণা সব সময় সঠিক হয় না। কারণ অনেক সময় মুনাফা কমলেও বা লোকসানে গেলেও যদি কোম্পানির রিজার্ভ ভালো থাকে, তাহলে কোম্পানির ডিভিডেন্ড সমপরিমাণ থাকে বা অনেক সময়ে বাড়েও।

ডিএসইর তথ্যমতে, মুনাফা কমে যাওয়া ১০টি কোম্পানির মধ্যে রয়েছে তিতাস গ্যাস, শাহজিবাজার পাওয়ার, বারাকা পাওয়ার, ডরিন পাওয়ার, এনার্জিপ্যাক পাওয়ার, সামিট পাওয়ার, ইউনাইটেড পাওয়ার, জিবিবি পাওয়ার, অ্যাসোসিয়েট অক্সিজেন ও লুবরেফ বাংলাদেশ লিমিটেড।

এই ১০টি কোম্পানির মধ্যে সর্বোচ্চ মুনাফা কমেছে তিতাস গ্যাসের। মুনাফা কমায় দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে শাহজিবাজার পাওয়ারের নাম। তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে বারাকা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবগুলো কোম্পানিরই ভালো রিজার্ভ রয়েছে। কোম্পানিগুলোর পরিচালনা পর্ষদ চাইলে ডিভিডেন্ড আগের বছরের সমপরিমাণ হতে পারে, এমন প্রত্যাশা বিনিয়োগকারীদের।

তিতাস গ্যাস

সমাপ্ত অর্থবছরের তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ২ টাকা ০৭ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ১ টাকা ৯৯ পয়সা বা ৯৬.১৩ শতাংশ।

শাহজিবাজার পাওয়ার

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৫ টাকা ৫৪ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৫ টাকা ০৬ পয়সা বা ৯১.৩৩ শতাংশ।

বারাকা পাওয়ার

তিন প্রান্তিক বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ২ টাকা ৫৩ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ২ টাকা ২৬ পয়সা বা ৮৯ শতাংশ।

ডরিন পাওয়ার

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৭৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৭ টাকা ৩৬ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৫ টাকা ৫৭ পয়সা বা ৭৫.৬৭ শতাংশ।

এনার্জিপ্যাক পাওয়ার

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮৪ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৩১ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৪৭ পয়সা বা ৩৬ শতাংশ।

সামিট পাওয়ার

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ০৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ২ টাকা ৮৫ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৮০ পয়সা বা ২৮.০৭ শতাংশ।

ইউনাইটেড পাওয়ার

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ টাকা ১৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১৭ টাকা ৩৪ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৩ টাকা ২১ পয়সা বা সাড়ে ১৮ শতাংশ।

জিবিবি পাওয়ার

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৮৭ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ০৭ পয়সা বা ৮.০৪ শতাংশ।

অ্যাসোসিয়েট অক্সিজেন

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৩৪ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ০৮ পয়সা বা ০৫ শতাংশ।

লুব-রেফ (বাংলাদেশ)

তিন প্রান্তিকে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৪২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৪৬ পয়সা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ০৪ পয়সা বা ২.৭৩ শতাংশ।

শেয়ারনিউজ, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পাঠকের মতামত:

শেয়ারবাজার এর সর্বশেষ খবর

শেয়ারবাজার - এর সব খবর



রে