ঢাকা, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪
Sharenews24

বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে রেল নেটওয়ার্ক তৈরির পরিকল্পনা ভারতের 

২০২৪ জুন ১৯ ২০:১৬:১৪
বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে রেল নেটওয়ার্ক তৈরির পরিকল্পনা ভারতের 

লের আগে কলকাতা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেন তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের ভেতর ঢুকে খানিকটা পথ অতিক্রম করার পরে আবার ভারতে প্রবেশ করতো। কিন্তু ১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পর সেটি বন্ধ হয়ে যায়।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, এবার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর সঙ্গে অন্যান্য রাজ্যের সরাসরি সংযোগ স্থাপনের জন্য বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে বিকল্প রেল নেটওয়ার্ক তৈরির পরিকল্পনা করছে ভারত।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে শিলিগুড়ি করিডোর দিয়ে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য এবং অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে ট্রেন চলাচল করে, যা 'চিকেন নেক' নামে পরিচিত।

২২ কিলোমিটার প্রশস্ত করিডোরটি বাংলাদেশ এবং নেপালের মধ্যবর্তী অঞ্চলের মধ্য দিয়ে গেছে, যা আবার চীনের সাথে বিতর্কিত অঞ্চলের মধ্যে পড়ে।

ফলে সামরিক ও বেসামরিক পণ্য পরিবহনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই 'চিকেন নেক' করিডোরের ওপর নির্ভরতা কমাতে চায় ভারত।

মূলত এই কারণেই করিডোর এড়িয়ে বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে বিকল্প রেল নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার কথা ভাবছে দেশটির সরকার। ইতোমধ্যে তারা একটি খসড়া প্রকল্প তৈরি করেছে।

এই প্রকল্পে বাংলাদেশের সাথে যুক্ত ১৪টি নতুন রুট থাকবে। রুটে মোট ৮৬১ কিলোমিটার রেললাইন থাকবে। বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বিকল্প পথ থাকবে।

মোট, এই প্রকল্পে রেললাইন হবে ১২৭৫.৫ কিলোমিটার। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে পুরনো রেললাইন বদলে নতুন রেললাইন বসানো হবে।

বাংলাদেশেও নতুন রেললাইন নির্মাণ করা হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে ভারত মূলত ১৯৮০ সালে বাংলাদেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত বাণিজ্য চুক্তির সুবিধা ব্যবহার করছে।

ভারতের উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ের সিপিআরও সব্যসাচী দে-এর মতে, প্রকল্পটি কলকাতা থেকে উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলিতে ভ্রমণের সময় কমিয়ে দেবে।

এছাড়া এই রেল নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের সাথে যোগাযোগকেও মসৃণ করবে। এতে উভয় দেশের বাণিজ্য ও পর্যটন খাত উপকৃত হবে।

মামুন/

পাঠকের মতামত:

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে