ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
Sharenews24

শেয়ারবাজারের ৭ ব্যাংকের আর্থিক অবস্থার উন্নতির নির্দেশ

২০২৩ সেপ্টেম্বর ২৯ ১৫:০৭:৩৮
শেয়ারবাজারের ৭ ব্যাংকের আর্থিক অবস্থার উন্নতির নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ব্যাংক সম্প্রতি দেশের ১৫টি ব্যাংকের আর্থিক অবস্থা উন্নতির জন্য নির্দেশনা দিয়েছে। এরমধ্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত রয়েছে ৭টি ব্যাংক। যেগুলো হলো-রূপালী ব্যাংক, আইসিবি ইসলামী ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, এবি ব্যাংক ও ওয়ান ব্যাংক।

গত মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় ব্যাংক কার্যালয়ে গভর্ণর আব্দুর রউফ তালুকদারের সভাপতিত্বে এক সভায় এই নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, আর্থক অবস্থা উন্নয়নের জন্য যে ১৫টি ব্যাংককে নির্দেশনা দিয়েছে, তারমধ্যে ৮টি ব্যাংকে বাংলাদেশ ব্যাংকের পর্যবেক্ষক রয়েছে। এগুলো হলো- সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, আইসিবি ইসলামী ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক।

এছাড়া আরও ৭টি ব্যাংকে বাংলাদেশ ব্যাংক সমন্বয়ক নিয়োগ দিয়েছে। এগুলো হলো- ন্যাশনাল ব্যাংক, এবি ব্যাংক, পদ্মা ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক, বেসিক ব্যাংক, বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক এবং বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক।

মূলত ঋণ নিয়ে অনিয়ম ও কেলেঙ্কারি শনাক্তে ব্যাংকগুলোকে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক পর্যবেক্ষক ও সমন্বয়ক নিয়োগ দিয়েছে।

বৈঠক শেষে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মেজবাউল হক সাংবাদিকদের বলেন, গভর্নর পর্যবেক্ষক ও সমন্বয়কদের এসব ব্যাংকের আর্থিক অবস্থার উন্নতি করতে বলেছেন।

মেজবাউল হক বলেন, গভর্নর ওই সব ব্যাংকের ম্যানেজমেন্ট ও পরিচালনা পর্ষদকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক আর কোনো সহানুভূতি দেখাবে না।

এদিকে পর্যবেক্ষক নিয়োগের পরও এসব ব্যাংকের আর্থিক অবস্থার অবনতি অব্যাহত আছে। যেমন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পর্যবেক্ষক থাকা সত্ত্বেও জনতা ব্যাংকের খেলাপি ঋণের পরিমাণ ক্রমাগত বাড়ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক ২০১৫ সালের নভেম্বরে রাষ্ট্রায়ত্ত জনতা ব্যাংকে পর্যবেক্ষক নিয়োগ দিয়েছিল। ২০১৭ সালের শেষে ব্যাংকটির মন্দ ঋণের পরিমাণ দাঁড়ায় ৫ হাজার ৮১৮ কোটি টাকা। এরপর চলতি বছরের মার্চ শেষে তা বেড়ে হয় ১৪ হাজার ৯৫০ কোটি টাকা। চলতি বছরের মার্চ শেষে যা ব্যাংকিং খাতের মোট খেলাপি ঋণের প্রায় ১১.৪০ শতাংশ।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ব্যাংকগুলোতে সুশাসনের অবনতি মোকাবিলায় পর্যবেক্ষক ও সমন্বয়কদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে, অন্যথায় পরিস্থিতির উন্নতি হবে না।

পর্যবেক্ষক নিয়োগের এই রীতি ১৯৯৪ সালে শুরু হয়েছিল। তখন ওরিয়েন্টাল ব্যাংকে কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছিল এবং তাদের সুশাসনের বিষয়টি সমাধানে একজন পর্যবেক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। পরে ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের নাম পরিবর্তন করে আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক করা হয়েছিল।

অন্যদিকে আবদুর রউফ তালুকদার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে যোগদানের পর চলতি বছর থেকে সমন্বয়ক নিয়োগ দেওয়া শুরু হয়।

শেয়ারনিউজ, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পাঠকের মতামত:

শেয়ারবাজার এর সর্বশেষ খবর

শেয়ারবাজার - এর সব খবর



রে