ঢাকা, রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪
Sharenews24

ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলা যাবে না, এতদিন টাকা লেনদেন না করলে

২০২৪ মার্চ ২৯ ১৪:৫৯:৪৯
ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলা যাবে না, এতদিন টাকা লেনদেন না করলে

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভারতে কোটি কোটি মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। তারা এই অ্যাকাউন্টে তাদের অর্থ সঞ্চয় করে। যা শুধু বর্তমানের চাহিদাই মেটায় না ভবিষ্যতের চাহিদাও পূরণ করে। ফলে সবার কাছেই ব্যাংক অ্যাকাউন্টের গুরুত্ব ও মূল্য অনেক বেশি।

কিন্তু জানেন কি আপনার সামান্য ভুলের কারণে বন্ধ হয়ে যেতে পারে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট? সেক্ষেত্রে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেলে কী করবেন?

এই দুটি প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে নিশ্চিত হওয়া যায় যে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট/অ্যাকাউন্ট সক্রিয় আছে। কারণ আপনি যদি একটি অ্যাকাউন্টে দীর্ঘ সময় ধরে ট্রেড না করেন তবে এটি নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়।

বর্তমান নিয়মে সাধারণত টানা ২ বছর কোন‌ও সেভিংস বা কারেন্ট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গ্রাহক লেনদেন না করলে ব্যাঙ্ক সেটিকে নিষ্ক্রিয় বলে ধরে নেয়। যাকে ব্যাঙ্কের পরিভাষায় বলা হয় Dormant Account. ফলে সেটি অটোমেটিক বন্ধ বা নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্টে পরিণত হয়।

এই অ্যাকাউন্ট খোলা থাকলেও ব্যাঙ্ক আলাদা করে তার হিসাব রাখে। যতক্ষণ না এটি পুনরায় সক্রিয় হবে ততক্ষণ ওই অ্যাকাউন্ট দিয়ে আপনি লেনদেন করতে পারবেন না। সেখানে জমা রাখা টাকা শত দরকারেও তুলতে পারবেন না।

এক্ষেত্রে মনে রাখবেন আপনার অ্যাকাউন্টে জমা টাকার উপর ব্যাঙ্কের সুদ প্রদান বা ব্যাঙ্ক ওই অ্যাকাউন্ট থেকে কোন‌ও চার্জ কেটে নেওয়ার বিষয়টিকে লেনদেনের মধ্যে ধরা হয় না।

অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় হওয়া ঠেকাতে কী করবেন?

ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় হওয়া ঠেকাতে প্রথমেই যেটা করতে হবে আপনাকে এক-দু মাসে অন্তত একবার ওই অ্যাকাউন্টে লেনদেন করতে হবে।

বর্তমানে অনলাইন ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা শক্তিশালী হওয়ায় কোন‌ও একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কিছু টাকা পাঠানো বা প্রয়োজন মতো সেখান থেকে টাকা তোলা খুব একটা সমস্যার নয়। শুধু বিষয়টি মাথায় রাখলেই সহজে হয়ে যায়।

তবে এক্ষেত্রে যদি ভুল হয়‌ও অর্থাৎ ২ বছরের বেশি যদি কোন‌ও অ্যাকাউন্টে লেনদেন না করেন সে ক্ষেত্রে ইউপিআই ব্যবহার করে পেমেন্ট, টাকা জমা দেওয়া বা টাকা তোলা, চেক ভাঙানো, ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার কিছুই কিন্তু করতে পারবেন না।

এক্ষেত্রে মনে রাখবেন লেনদেন ছাড়া ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টকে সক্রিয় রাখার মেয়াদ বিভিন্ন ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকম। তবে তা সাধারণত এক বছর থেকে দু’বছরের মধ্যে হয়ে থাকে।

ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় হয়ে গেলে কী করতে হবে?

দীর্ঘদিন লেনদেন না করার ফলে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যদি নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে তবে বিষয়টি ঠিক করতে আপনাকে ব্যাঙ্কের শাখায় যেতে হবে। সেখানে গিয়ে নতুন করে KYC নথি জমা দিয়ে আবার অ্যাকাউন্টটি সক্রিয় করতে পারবেন।

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, আগের কর্মস্থলের কাছে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন। পরবর্তীতে অন্য জায়গায় চলে গিয়েছেন। ফলে দূরে হওয়ায় আগের অ্যাকাউন্টটিতে লেনদেন করা সম্ভব হচ্ছে না।

সেক্ষেত্রে আপনি অ্যাকাউন্ট নিকটবর্তী শাখায় ট্রান্সফার করে নিতে পারেন। এর জন্য পুরনো শাখায় গিয়ে অ্যাকাউন্ট ট্রান্সফারের আবেদন জমা দিয়ে দ্রুত কাজটা করে ফেলা যাবে।

শেয়ারনিউজ, ২৯ মার্চ ২০২৪

পাঠকের মতামত:

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ খবর

আন্তর্জাতিক - এর সব খবর



রে