ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪
Sharenews24

মরা মুরগির ঘিলা-কলিজা বিক্রি করেই কোটিপতি সুজন

২০২৪ এপ্রিল ২০ ০৯:২৭:৩৮
মরা মুরগির ঘিলা-কলিজা বিক্রি করেই কোটিপতি সুজন

নিজস্ব প্রতিবেদক : জামালপুরে সদরের বাসিন্দা সুজন মিয়ার বিরুদ্ধে মরা ও পচা মুরগির দুর্গন্ধযুক্ত পা, ঘিলা ও কলিজা বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। ঘিলা কলিজা বেচে রীতিমতো কোটিপতি বনে গেছেন এই অসাধু ব্যবসায়ী।

সুজন মিয়া জামালপুর সদরের শরিফপুর ইউনিয়নের ডেঙ্গারঘর গ্রামের বাসিন্দা হলেও ব্যবসার সুবাদে তিনি পৌর শহরের বানিয়া বাজারে ভাড়া বাসায় থাকেন।

জানা যায়, সুজন মিয়া একসময় কুলা-চালনি বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করলেও এখন নগরীর ছনকান্দা এলাকায় মরা ও পচা মুরগি বিক্রি করে জমি কিনেছেন। গ্রামে আবাদি জমিও কিনেছেন। কংক্রিটের ঘর বানিয়েছেন। একটি ১৫০ সিসির মোটরসাইকেল চালান।

অভিযোগ রয়েছে, প্রতিদিন ১২০-২৪০ কেজি পোল্ট্রি মুরগির পা, ঘিলা ও কলিজা জেলার প্রত্যন্ত এলাকায় নিয়ে বিক্রি করেন সহযোগী শুক্কুর আলী। জামালপুর ব্রহ্মপুত্র সেতুর নিচে অবৈধভাবে গড়ে তোলা একটা ভাড়া ঘর থেকে এ ব্যবসা পরিচালনা করা হয়।

এসব বিষয়ে সুজন মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ ব্যবসা করি। আমি এত কিছু বুঝি না, কোম্পানি থেকে মাল কিনে এনে বিক্রি করি। ‍সাংবাদিকরা কোম্পানির মালের চালান আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, চালান বাড়িতে। চালান বাড়িতে মাল দোকানে কীভাবে জিজ্ঞেস করলে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

জামালপুর সদর উপজেলার স্বাস্থ্য কর্মকতা ডা. উত্তম কুমার সরকার বলেন, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এবং নষ্ট হয়ে যাওয়া কোনো কিছু এভাবে কেউ বিক্রি করতে পারেন না। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করার পরামর্শ দেন তিনি।

উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহনাজ ফেরদৌস জানান, তিনি ছুটিতে আছেন। সহকারী ভূমি কর্মকর্তাও নতুন যোগদান করেছেন। ছুটি থেকে ফিরে বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তিনি।

শেয়ারনিউজ, ২০ এপ্রিল ২০২৪

পাঠকের মতামত:

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে