ঢাকা, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
Sharenews24

সরকারি প্রতিষ্ঠান তালিকাভুক্তির নির্দেশ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ডিএসইর অভিনন্দন

২০২৪ মে ১২ ০৫:৪৯:০২
সরকারি প্রতিষ্ঠান তালিকাভুক্তির নির্দেশ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ডিএসইর অভিনন্দন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) দীর্ঘদিনের লক্ষ্য ছিল সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত করার ৷ কিন্তু বহু চেষ্টার পরও সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে তালিকাভুক্ত করতে পারেনি ডিএসই ৷

অবশেষে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেয়ারবাজারের মাধ্যমে অর্থনীতিকে গতিশীল করতে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা নিয়ে শেয়ারবাজারে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে তালিকাভুক্তির নির্দেশনা দিয়েছেন। এর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন ডিএসইর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু৷

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (০৯ মে) শেরেবাংলা নগরের পরিকল্পনা কমিশনে এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় সরকারি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শেয়ারবাজারে আনার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷

ভালো শেয়ারের সরবরাহ বাড়িয়ে দেশের শেয়ারবাজারকে আরো শক্তিশালী করতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থবিভাগকে সম্ভাবনাময় রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সরকারি সংস্থা ও সরকারি কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত করার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন।

ডিএসই’র চেয়ারম্যান ড. হাসান বাবু বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা শেয়ারবাজারের জন্য অত্যন্ত ইতিবাচক ও সময়োপযোগী৷ এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন হলে শেয়ারবাজারে ভালো কোম্পানি তালিকাভুক্তির মাধ্যমে শেয়ারবাজারের গতিশীলতা বৃদ্ধির পাশাপাশি সার্বিক অর্থনীতিতে গতি আসবে এবং শেয়ারবাজার দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ আকৃষ্ট করবে, যা শেয়ারবাজারের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করবে৷ তিনি বলেন, শেয়ারবাজারকে ঘিরে সরকারের এই ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি ও মনোভাবের ফলে দেশের শিল্পায়নের গতি ত্বরান্বিত হওয়ার মাধ্যমে শেয়ারবাজার দেশের অথনৈতিক উন্নয়নে আরও বেশি কার্যকরী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে৷ শেয়ারবাজারকে সম্প্রসারিত ও গতিশীল করার জন্য শেয়ারবাজারের প্রতি সরকারের বিশেষ গুরুত্বারোপকে তিনি বিশেষভাবে অভিনন্দন জানান৷

ডিএসই’র চেয়ারম্যান আরও বলেন, ডিসিই-ও শেয়ারবাজারকে অধিকতর গতিশীল করতে অবকাঠামোগত ও প্রযুক্তিগত সকল ধরণের উন্নয়ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে৷ একইসাথে তিনি বলেন, বিভিন্ন গ্রুপ অব কোম্পানিজ এবং আরএমজি সেক্টরের গ্রীণ ফ্যাক্টরীগুলো শেয়ারবাজারে অন্তর্ভুক্তির জন্য ডিএসই কাজ করে যাচ্ছে৷

তিনি বলেন, দীর্ঘমেয়াদী মূলধন সংগ্রহের অন্যতম মাধ্যম হলো দেশের শেয়ারবাজার। তাই উন্নয়ন অগ্রযাএার স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে দেশের শেয়ারবাজার সরকারকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে বলে মনে করেন তিনি৷

শেয়ারনিউজ, ১১ মে ২২৪

পাঠকের মতামত:

শেয়ারবাজার এর সর্বশেষ খবর

শেয়ারবাজার - এর সব খবর



রে