ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
Sharenews24

প্রবাসীর স্বর্ণালংকার ছিনতাই, এসআই আমিনুল ও সোর্স রিমান্ডে

২০২৪ মে ২০ ১৯:৪৭:৪২
প্রবাসীর স্বর্ণালংকার ছিনতাই, এসআই আমিনুল ও সোর্স রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রামে ফিল্মি স্টাইলে প্রবাসীর স্বর্ণালংকার ছিনতাইয়ের ঘটনায় খুলশী থানার এসআই আমিনুল ইসলাম ও তার সোর্স শহিদুল ইসলাম জাহেদকে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (২০ মে) বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম কাজী শরিফুল ইসলাম এ আদেশ দেন বলে নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও খুলশী থানার এসআই সুমিত বড়ুয়া।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৬ ভরি স্বর্ণ ডাকাতির মামলায় গ্রেপ্তার এসআই আমিনুল ইসলাম ও তার সোর্স শহিদুল ইসলাম জাহেদকে মহানগর হাকিম কাজী শরিফুল ইসলামের আদালতে হাজির করা হয়। দুজনের বিরুদ্ধে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

আদালতে রিমান্ড শুনানির সময় আসামির আইনজীবি রিমান্ডের বিরোধিতা করেন। রাষ্ট্রপক্ষ রিমান্ডের আবেদন করেন। শুনানি শেষে দুজনের বিরুদ্ধে ১ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন আদালত।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও খুলশী থানার এসআই সুমিত বড়ুয়া জানান, প্রবাসীর স্বর্ণ ডাকাতির মামলায় দুই আসামিকে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

মামলার সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলার বাসিন্দা আব্দুল খালেক গত ১২ মে সৌদি আরব থেকে দেশে বেড়াতে আসেন। তবে তিনি প্রবাসে ৮টি সোনার চুড়ি রেখে আসেন। এরপর এক পরিচিতজনের মাধ্যমে রোববার শাহ আমানত বিমানবন্দরের মাধ্যমে দেশে আনা হয়। বিমানবন্দরে গিয়ে এসব চুড়ি গ্রহণ শেষে ৬ নম্বর রুটের বাসে করে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি।

বিকেল ৪টার দিকে তিনি নগরীর টাইগারপাস এলাকায় পৌঁছালে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে খুলশী থানার এসআই আমিনুল তাকে বাস থেকে নামিয়ে আনেন। পরে একটি সিএনজি অটোরিকশায় উঠান। এই সময় তার সঙ্গে আরও দুজন ছিলেন। পরে তাকে আকতারুজ্জামান ফ্লাইওভারে নিয়ে গিয়ে তার কাছে থাকা স্বর্ণালংকার অবৈধ উল্লেখ করে কাগজপত্র দেখতে বলা হয়। এক পর্যায়ে ৮টি স্বর্ণের চুড়ি নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এরপর খালেক তাকে জাপ্টে ধরেন এবং চিৎকার দিতে থাকেন।

পরে স্থানীয় লোকজন ও টহল পুলিশের সহায়তায় এসআই আমিনুল ও সোর্স জাহেদকে আটক করা হয়। এই ঘটনায় রোববার রাতে ভুক্তভোগী আব্দুল খালেক বাদী হয়ে খুলশী থানার এসআই আমিনুল ইসলামসহ তিনজনকে আসামি করে একটি ডাকাতি মামলা করেন।

গ্রেফতার এসআই আমিনুল ইসলামের বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় । তিনি পুলিশে যোগ দেন ২০১২ সালে। গ্রেফতার পুলিশের সোর্স জাহিদ নগরের বাকলিয়া থানার রাহাত্তারপুল এলাকার কেবি আমান আলী সড়কের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

শেয়ারনিউজ, ২০ মে ২০২৪

পাঠকের মতামত:

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে