ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
Sharenews24

মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় যা যা করতে পারবেন না সাবেক সেনাপ্রধান

২০২৪ মে ২১ ২৩:২৬:১২
মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় যা যা করতে পারবেন না সাবেক সেনাপ্রধান

নিজস্ব প্রতিবেদক : সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার (২০ মে) মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার এক বিবৃতিতে সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের বিরুদ্ধে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করার কথা জানান।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আরোপের ফলে সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ অনেক সুযোগ-সুবিধা হারাবেন। দেখা যাক মার্কিন নিষেধাজ্ঞার প্রভাবে তিনি কী হারান।

১. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ

এই নিষেধাজ্ঞা আরোপের ফলে জেনারেল আজিজ আহমেদ আর যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারবেন না। শুধু তিনিই নন, তার পরিবারের সদস্যরাও যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। তাদের যদি কোনো মার্কিন ভিসা থাকে তাহলে তা বাতিল হয়ে যাবে। একইভাবে তার পরিবারের অন্য সদস্যদের যদি যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা থাকে, তাহলে তাও বাতিল হয়ে হবে।

২. স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত

যুক্তরাষ্ট্রে তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি অর্থাৎ বাড়ি, গাড়ি, ব্যবসা-বাণিজ্য বাজেয়াপ্ত করা হবে। যদি যুক্তরাষ্ট্রে তার কোনো ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকে, তবে তা বাজেয়াপ্ত করা হবে। এছাড়াও, তাঁর পরিবারের সদস্যদের যেকোন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বা আর্থিক লেনদেনও বাজেয়াপ্ত করা হবে।

৩. বাণিজ্য করতে পারবেন না

জেনারেল আজিজ আহমেদ ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে কোনো ব্যবসা-বাণিজ্য করতে পারবেন না। আজিজ আহমেদের কোনো ব্যবসায় যদি কোনো পণ্য যুক্তরাষ্ট্রে রপ্তানি করতে চায় তাহলে তা নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে। একইভাবে তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে কোনো পণ্য আমদানি করার সুযোগ পাবেন না।

৪. মার্কিন বন্ধু রাষ্ট্রে ভিসা বিড়ম্বনা

নিষেধাজ্ঞার ফলে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যারা বিভিন্ন সামরিক এবং অর্থনৈতিক জোটে আছে সেসমস্ত দেশগুলোতেও জেনারেল আজিজ আহমেদ এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের প্রবেশে বিড়ম্বনার মুখে পড়তে পারেন। কারণ মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা থাকার ফলে যেসব দেশগুলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিভিন্ন জোটে আছে সেমস্ত দেশ তাঁকে ভিসা দিতে অস্বীকৃতি জানাতে পারে। এর ফলে বিশ্বের অর্ধেকেরও বেশি রাষ্ট্রে যাওয়ার ক্ষেত্রে তিনি বিড়ম্বনায় পড়তে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও এই দেশগুলো মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা প্রতিপালনে বাধ্য নয়। কিন্তু অতীতে দেখা গেছে যাদের ওপর মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল তারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থক রাষ্ট্রগুলো যেমন, কানাডা, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়ার মতো রাষ্ট্রগুলোতে প্রবেশ করতে পারেননি।

৫. ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ড ব্যবহারে জটিলতা

যুক্তরাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত যেসমস্ত ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ড রয়েছে যেমন, ভিসা কার্ড, মাস্টার কার্ড ইত্যাদি ব্যবহারের ক্ষেত্রে তিনি জটিলতার মুখে পড়তে পারেন। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের মাধ্যমে বৈশ্বিক লেনদেন হয়। এইসমস্ত ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডগুলো নিষেধাজ্ঞার আওতায় আসবে। ফলে এসমস্ত ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ড ব্যবহারে সমস্যার মুখে পড়তে পারেন সাবেক সেনাপ্রধান এবং তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

এছাড়াও, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে তিনি অন্যান্য দেশের ভিসা পেতে এবং এমনকি সেসব দেশে আর্থিক বা অন্যান্য বিনিয়োগ করতেও প্রশ্ন ও হয়রানির সম্মুখীন হতে পারেন।

শেয়ারনিউজ, ২১ মে ২০২৪

পাঠকের মতামত:

জাতীয় এর সর্বশেষ খবর

জাতীয় - এর সব খবর



রে