ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
Sharenews24

বিমানে প্রচণ্ড ঝাঁকুনি, একই পরিবারের পাঁচজন আইসিইউতে

২০২৪ মে ৩০ ০৬:০১:৫৩
বিমানে প্রচণ্ড ঝাঁকুনি, একই পরিবারের পাঁচজন আইসিইউতে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজ গত ২১ মে প্রতিকূল পরিস্থিতির কবলে পড়ে। আকাশে উড়া অবস্থায় উড়োজাহাজটিতে বেশ ঝাঁকুনি হয়। এই ঘটনায় এক যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন প্রায় ৫০ জন। এদের মধ্যে একই পরিবারের পাঁচজন আইসিইউতে আছেন।

আইসিইউতে থাকা ব্যক্তিদের একজন ইভা খু। তিনি মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের বাসিন্দা। গত সপ্তাহে তার কাছে একটি ফোনকল আসে। বলা হয়, তার পরিবারের সদস্যদের বহনকারী উড়োজাহাজ মাঝ আকাশে প্রতিকূল পরিস্থিতির শিকার হয়েছে। তবে এই ব্যাপারে দুশ্চিন্তা না করতে তাকে পরামর্শ দেওয়া হয়।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে বিমানটি জরুরি অবতরণের কয়েক ঘণ্টা পর ইভা তার স্বজনদের খুঁজে পায়নি। ইভার ভাই এবং তার গর্ভবতী স্ত্রী লন্ডন থেকে সিঙ্গাপুরের ফ্লাইটে ছিলেন। তাদের সঙ্গে এক বন্ধু ও পরিবারের আরও চার সদস্য ছিলেন।

বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইভা খু বলেন, বিষয়টি আমাকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছিল। পরে তার ভাইয়ের স্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়। ভাইয়ের স্ত্রীও জানান, তিনি হাসপাতালে আছেন। কিন্তু অন্যরা জানে না তারা কোথায় আছে।

ইভা খু বলেন, ২১ মে রাত খুব চিন্তার মধ্যে কেটেছে তার। আত্মীয়রা মৃত বা জীবিত, বা তাদের আঘাত কতটা গুরুতর ছিল, সেই সম্পর্কে কোনো খবরই তারা পাচ্ছিলেন না।

পরের দিন তিনি কুয়ালালামপুর থেকে ব্যাংকক গিয়ে দেখেন যে সাতজনই হাসপাতালে ভর্তি। তাদের মধ্যে পাঁচজনকে সম্মিটিভেজ শ্রীনাকরিন হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

পরিবারের পাঁচ সদস্যকে আরও কয়েকদিন হাসপাতালে থাকতে হবে বলে জানান তিনি। এই পাঁচ সদস্যের মধ্যে একজন বৃদ্ধ মামা রয়েছেন। সেই চাচা বললেন, শিশু যেমন প্রথমবার হাঁটতে শেখে ঠিক সেভাবে তিনি এখন হাঁটতে শিখছেন।

ফ্লাইটটি যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডন থেকে সিঙ্গাপুর যাচ্ছিল। পরে এটি থাইল্যান্ডের ব্যাংককে জরুরি অবতরণ করে। বিমানটিতে ২১১ জন যাত্রী এবং ১৮ জন ক্রু সদস্য ছিল।

শেয়ারনিউজ, ৩০ মে ২০২৪

পাঠকের মতামত:

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ খবর

আন্তর্জাতিক - এর সব খবর



রে