ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪
Sharenews24

মুস্তাফিজের আইপিএল ইস্যুতে দুই বোর্ড পরিচালকের ভিন্ন মত

২০২৪ এপ্রিল ১৮ ১০:২৫:১৩
মুস্তাফিজের আইপিএল ইস্যুতে দুই বোর্ড পরিচালকের ভিন্ন মত

স্পোর্টস ডেস্ক : চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলছেন মুস্তাফিজুর রহমান। এখনো পর্যন্ত ৫ ম্যাচ খেলে ১০ উইকেট শিকার করেছেন টাইগার এই পেসার। তবে দেশে ফেরার সময় ঘনিয়ে আসছে মুস্তাফিজের।

শুরুতে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত এই পেসারকে আইপিএল খেলার ছাড়পত্র দিয়েছিল বিসিবি। এরপর ১দিন বাড়িয়েছে দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

সবকিছু ঠিক থাকলে ২মে দেশে ফিরবেন মুস্তাফিজ। তবে বিসিবি বলছে মুস্তাফিজকে ফেরানোর কারণ শুধুই জিম্বাবুয়ে সিরিজ নয়। তার ফিটনেস ওয়ার্ক লোডের ব্যাপারও দেখছে বোর্ড।

গতকাল বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিসিবির ক্রিকেট অপরারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস মুস্তাফিজ ইস্যুতে গণমাধ্যমে দেওয়ার সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেছেন। জানিয়েছেন তার আইপিএল থেকে শেখার কিছু নেই।

জালাল বলেন, 'মুস্তাফিজকে আমরা ১ তারিখ পর্যন্ত খেলতে দিচ্ছি। ২ তারিখ আসবে, ৩ তারিখ থেকে সে এভেলএভেল। তার আইপিএল খেলে শেখার কিছু নেই। মুস্তাফিজের শেখার প্রসেস ওভার। বরং মুস্তাফিজের থেকে শিখতে পারে আইপিএলে অনেক খেলোয়াড় আছে। এতে বাংলাদেশের কোনো লাভ হবে না।'

তিনি বলেন, মুস্তাফিজের ফিটনেস ইস্যু নিয়ে, 'তারা চাইলে মুস্তাফিজ থেকে শতভাগ নেওয়ার জন্য। মুস্তাফিজের ফিটনেস, স্বাস্থ্য এসব নিয়ে তাদের মাথা ব্যথা নেই, কিন্তু আমাদের আছে। মুস্তাফিজকে এখানে ফেরানোর কারণ শুধু জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য নয়।

জিম্বাবুয়ে সিরিজে আমরা তাকে ওয়ার্ক লোড ঠিক রেখে খেলাব। আইপিএলে থাকলে সেই পরিকল্পনা হবে না। সুতরাং মুস্তাফিজের শেখার অধ্যায় শেষ। মুস্তাফিজকে শেখানোর আর কোনো দরকার নেই। সে সাত-আট বছর ধরে ক্রিকেট খেলে। আইপিএলে খেলে। তো লাভবান তারা হবে, আমরা হব না।'

'মুস্তাফিজকে দেশে ফিরিয়ে আনা মানেই যে আমরা তাকে জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলাব তা নয়। আমরা তাকে ওয়ার্ক লোড দিব, চাপ কমাব, দলের সঙ্গে থাকবে, বোঝাপাড়া বাড়বে। বিশ্বকাপের মতো একটা বড় ইভেন্টে যাচ্ছে, যাওয়ার আগে তো এডজাস্ট করতে হবে। ফিট থাকতে হবে। আই নিড হিম। ফ্রেশ মুস্তাফিজকে চাই। এক্সহস্টেড মুস্তাফিজকে না।'-যোগ করেন জালাল।

এদিকে গেল সোমবার বিসিবির আরেক পরিচালক ও সাবেক ক্রিকেট অপরারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান জানিয়েছেন ভিন্ন মত। তিনি চান আইপিএল খেলুক মুস্তাফিজ। আকরাম বলছিলেন, ‘আমার কাছে যা মনে হচ্ছে, মুস্তাফিজের পারফরম্যান্স নিয়ে কিন্তু আমরা চিন্তিত ছিলাম। ও গত ১ বছর একটু সংগ্রাম করছিল।

আইপিএলে কিন্তু ওর পারফরম্যান্সটা ভালোর দিকে যাচ্ছে। একদম ভালো হচ্ছে তা না, যেহেতু সে লঙ্গার ভার্সন খেলে না। ও যদি আইপিএলে গিয়ে এভাবে ভালো করতে থাকে তাহলে বিশ্বকাপে আমার কাছে মনে হয় অনেক বেশি বেনিফিটেড হবে বাংলাদেশ। ও ভালো করছে এটা বাংলাদেশের জন্য খুব ভালো।’

মুস্তাফিজকে পুরো আইপিএলে খেলতে দেওয়ার পক্ষে আকরাম, ‘মুস্তাফিজ যে টাইপের প্লেয়ার ওকে যদি ইউজ করতে পারেন তাহলে আপনি ১০০% বেনিফিটেড হবেন। যেটা (মহেন্দ্র সিং) ধোনির দল করছে। কলকাতার সাথে যেভাবে বল করেছে যেভাবে প্ল্যান করেছে।

তিনি বলেন, আমার মনে হয় চেন্নাইয়ের হয়ে যত ম্যাচ খেলবে সে অনেক বেনিফিটেড হবে তার সাথে বাংলাদেশও অনেক বেনিফিটেড হবে। জিম্বাবুয়ের সাথে খেলার চেয়ে ওখানে খেললে আমার মনে হয় সে অনেক কিছু শিখবে। ড্রেসিংরুম আছে, বড় প্লেয়ারদের সাথে খেলবে। বিভিন্ন টাইপের প্লেয়ারদের সাথে খেলছে। আমার মনে হয় এই সুযোগটা ওর পাওয়া উচিত।’

শেয়ারনিউজ, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

পাঠকের মতামত:

খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর

খেলাধুলা - এর সব খবর



রে