ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪
Sharenews24

ঘনঘন ভুলে যাচ্ছেন? হাত-পায়ে ঝিঁঝি ধরছে? কোন ভিটামিনের অভাবে জানেন?

২০২৪ এপ্রিল ২৬ ২১:২১:০১
ঘনঘন ভুলে যাচ্ছেন? হাত-পায়ে ঝিঁঝি ধরছে? কোন ভিটামিনের অভাবে জানেন?

স্বাস্থ্য ডেস্ক : সুস্থ থাকার জন্য শরীরে সঠিক ভিটামিন বি ১২ থাকা খুবই জরুরি। এই ভিটামিন স্নায়ুর স্বাস্থ্য বজায় রাখে, আরবিসি এবং ডিএনএ গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আবার মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করে।

পরিসংখ্যান বলছে, ভারতের প্রায় ৪৭ শতাংশ মানুষ এই ভিটামিনের অভাবে ভুগছেন। বিশেষ করে নিরামিশাষীদের মধ্যেই এই ভিটামিনের ঘাটতি দেখা যায়, কারণ, এটি ‘প্লান্ট বেসড ভিটামিন’ নয়।

নার্ভের কোষ ও রক্তের কোষের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে ভিটামিন বি ১২ অত্যন্ত জরুরি। এই ভিটামিন ডিএনএ তৈরিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আমাদের শরীর নিজে থেকে ভিটামিন বি ১২ তৈরি করতে পারে না। কাজেই খাবার ও পানীয়ের মাধ্যমে এই ভিটামিন গ্রহণ করতে হয়। মাংস, দুগ্ধজাত খাবার ও ডিমে প্রচুর পরিমাণে এই ভিটামিন থাকে। বেস কিছু শস্য, পাউরুটি ও ইস্টেও এই ভিটামিন থাকে।

রক্তকণিকা ও স্নায়ুকোষের স্বাস্থ্য রক্ষায়, ডিএনএ ও জিনগত উপাদান তৈরি এবং হাড় ভাল রাখতে ভিটামিন বি১২ গুরুত্বপূর্ণ। চুল, নখ ও ত্বক-ও ভাল রাখে এই ভিটামিন।

এই ভিটামিনের অভাবে দেখা দিতে পারে মানসিক অবসাদ, কমতে পারে স্মৃতিশক্তি, হাস-পা অসার হয়ে যেতে পারে।শরীরে ভিটামিন বি১২-এর ঘাটতি হয়েছে কী করে বুঝবেন? লন্ডনের National Health Services (NHS)-এর গবেষকরা বলছেন, ভিটামিন বি১২-এর ঘাটতি প্রথম পরিলক্ষিত হয় শরীরের চার অংশে– হাত, হাতের পাতা, পা ও পায়ের পাতা।

গবেষকদের মতে, যাঁদের ভিটামিন বি১২ এর ঘাটতি আছে শরীরে, তাঁদের এই চার অংশে অদ্ভুত একটি অনিভূতি হয়। ডাক্তারি পরিভাষায় একে বলে ’ প্যারাসথেসিয়া’ বা ‘পিন অ্যান্ড নিডল’, অর্থাৎ এই চার অংশে ঝিঁঝি ধরে কিংবা সূক্ষ্ম ছুঁচ ফোটানোর অনুভূতি হয়। তবে অনেক ক্ষেত্রে নার্ভের নানা সমস্যা, মালটিপল স্ক্লেরোসিস, হাইপারথাইরয়েডিজম, কম রক্ত, হাইপারভেন্টিলেশন, ডায়াবেটিস-এর কারণেও ’ প্যারাসথেসিয়া’ হতে পারে।

আর কীভাবে বুঝবেন ভিটামিন বি ১২-এর ঘাটতি হয়েছে শরীরে? গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ভিটামিন বি ১২-এর সঙ্গে মস্তিষ্কের কার্যকারিতার বিশাল যোগ রয়েছে। এই ভিটামিনের ঘাটতি মানসিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব ফেলে। চিন্তাশক্তি এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা কমে যেতে পারে। বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত, মস্তিষ্কের স্নায়ুর সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন রো

লন্ডনের National Health Services (NHS)-এর গবেষকদের মতে, ভিটামিন বি ১২-এর অভাবে অ্যানিমিয়া দেখা দেয় কারণ, ভিটামিন বি ১২-এর অভাবে শরীর সঠিকভাবে আরবিসি বা লাল রক্তকণিকা তৈরি করতে পারে না।

ভিটামিন বি১২ এর ঘাটতিতে আরবিসি সঠিকভাবে কাজ করতে পারে না। এই পরিস্থিতি ডাক্তারি পরিভাষায় বলে মেগালোব্লাসটিক অ্যানেমিয়া। অনেক ক্ষেত্রে এই ভিটামিনের অভাবে ত্বকে হলদেটে ভাব আসে। এ ছাড়া, ত্বকে শ্বেতি, চুলের রং বদলে যাওয়ার মত সমস্যাও দেখা যায়।

ভিটামিন বি-১২-এর অভাবে পেটের সমস্যা হতে পারে। পেটে সংক্রমণ, প্রদাহের মত সমস্যা দেখা যায়, মুখের ঘা দেখা দেয় এবং পায়ে ঝিঁঝি ধরায়।

নিরামিষ খাবারে এই ভিটামিনের পরিমাণ কিছুটা কম থাকে। প্রাণিজ খাবারে অপেক্ষাকৃত বেশি পরিমাণে ভিটামিন বি১২ থাকে। ডিম, মাশরুম, বিভিন্ন ধরনের মাংস ও সামুদ্রিক মাছ ভিটামিন বি১২-এর সমৃদ্ধ উৎস। এ ছাড়া দুধ, দই, ছানায়ও ভাল মাত্রায় এই ভিটামিন পাওয়া যায়।

কাদের ঝুঁকি বেশি? বয়স্ক, শিশু ও ডায়াবেটিকদের ঝুঁকি বেশি। বিশেষ করে নিরামিশাষীদের মধ্যে এই ভিটামিনের ঘাটতি দেখা যায়, কারণ, এটি ‘প্লান্ট বেসড ভিটামিন’ নয়।

শেয়ারনিউজ, ২৬ এপ্রিল ২০২৪

পাঠকের মতামত:

স্বাস্থ্য এর সর্বশেষ খবর

স্বাস্থ্য - এর সব খবর



রে